ধর্ম যার যার রাষ্ট্র সবার

টেলিভিশন ও খবরের কাগজে ধর্ম আর রাজনীতির যুগল বন্দী শুনতে শুনতে ভাবছিলাম – আমাদের এই সুন্দর পৃথিবীর আধুনিক ডিজিটাল যুগে রাষ্ট্রধর্ম ও ধর্মনিরপেক্ষতার অবস্থা কেমন । ইন্টারনেটে হাতড়াতে বসে গেলাম । দেখলাম পৃথিবীর প্রায় ছোট বড় মিলিয়ে প্রায় ২২৮ দেশের মধ্যে এখনও ৫৯ টা দেশ NON-SECULAR বা বলতে পারি NON-SECULAR দেশের সংখ্যা এখনও পৃথিবীর সমস্ত দেশের ২৬% মতো । আমাদের সাতটা মহাদেশ(continent)এর মধ্যে অ্যান্টার্কটিকা(Antarctica) তে কোন জনসংখ্যা নেই আর দক্ষিণ আমেরিকা (South America ) র ১৬  টা দেশের প্রায় ৪৩ কোটির উপর  জনসংখ্যার  মধ্যে  কোন NON-SECULAR দেশ নেই । অস্ট্রেলিয়া বা ওশেনিয়া(Australia/Oceania ) মহাদেশের ২৩ টা দেশের মোট ৪ কোটির উপর জনসংখ্যার  মধ্যে  ৩ (১৩%)  টে দেশ কেবলমাত্র NON-SECULAR ।আর উত্তর আমেরিকা ( North America ) র ৩৩ দেশের ৫৯ কোটি উপর জনসংখ্যাতে NON-SECULAR দেশের সংখ্যা মাত্র ৫ (১৫%)  । ইউরোপ (Europe ) এর ৫৩ দেশের প্রায় ৭৪ কোটির উপর জনসংখ্যার  মধ্যে  NON-SECULAR দেশের সংখ্যা ১২ ( ২৩%) । আফ্রিকা (Africa ) এর ৫৬  দেশের প্রায় ১৩৪  কোটির উপর জনসংখ্যার  মধ্যে  NON-SECULAR দেশের সংখ্যা ১৫ ( ২৭%) । আর আমাদের মাহাদেশ এশিয়া (Asia) এর ৪৭   দেশের প্রায় ৪৬৪   কোটির উপর জনসংখ্যার  মধ্যে  NON-SECULAR দেশের সংখ্যা ২৪ ( ৫১ %)। তাহলে এটাই দেখা যাচ্ছে  যে আমরা যে মহাদেশে বাস করি সেই মহাদেশের অবস্থা সবচেয়ে খারাপ । কি জানি আমাদের এই মহাদেশেই বোধহয় প্রগতিশীল লোকের সংখ্যা সবচেয়ে কম বা বলা যায় মৌলবাদীদের চাপে প্রগতিশীলদের আওয়াজ ধামাচাপা পরে যাচ্ছে । কেননা রাষ্ট্র কেন ধর্ম নিয়ে চিন্তা করবে । ধর্ম যার যার রাষ্ট্র সবার । আমার মনে হয় সারা পৃথিবীতে যেসব দেশে সংখ্যাগুরু ধর্মাবলম্বী লোকজন কোন যুক্তি তর্ক মানে না ধর্মকে শুধু আবেগ দিয়ে চিন্তা করে সেইসব দেশেই ধর্মনিরপেক্ষ রাষ্ট্র নয় ।ধর্মতো ব্যাক্তিগত ব্যাপার । যার যার ইচ্ছার ওপর নির্ভর করে । রাষ্ট্র কেন কোন ধর্মের ব্যাপারে মাথা গলাবে ।রাষ্ট্রর উচিৎ কখনই কোনরকম ধর্মীয় হস্তক্ষেপ না করা , কোন ধর্মীয় বিশ্বাসে বিশ্বাসী না হওয়া  এবং কোন ধর্মকে কোন প্রকার অতিরিক্ত সুবিধা না দেওয়া ।রাষ্ট্রে কোন ধর্মভিত্তিক আইন থাকা উচিৎ নয়  । সকলের জন্য থাকবে সমান অধিকার বা সমান আইন । রাষ্ট্র সবসময় ধর্মীয় ভেদাভেদ মুক্ত সমাজ তৈরি করবে । রাষ্ট্র কক্ষন  কোনো নির্দিষ্ট ধর্মের পক্ষে কথা বলবে না এবং নির্দিষ্ট ধর্মের অনুকূলে কাজ করবে না ।তাহলেই তো আমরা পৃথিবীতে একটা সুন্দর ধর্মীয় ভেদাভেদ মুক্ত সমাজ পেতে পারি । আশা রাখি যেসব দেশ এখনও এই আধুনিক পরিবেশে NON-SECULAR দেশ হিসাবে আছে , সেইসব দেশের প্রগতিশীল মানুষজন সেইসব দেশকে ধর্মীয় ভেদাভেদ মুক্ত দেশ বা ধর্মনিরপেক্ষ দেশ বানাতে সাহায্য করবে ।    

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out /  Change )

Google photo

You are commenting using your Google account. Log Out /  Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out /  Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out /  Change )

Connecting to %s